Saturday, 24 June 2017


পর্তুগালে ভয়াবহ দাবানলে নিহত ৫৭

ঢাকা,১৮জুন,ফোকাস বাংলা নিউজ ডেস্ক:পর্তুগালের ভয়াবহ দাবানলে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫৭ জনে দাঁড়িয়েছে। দেশটির কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।দেশটির সরকার জানিয়েছে, আগুন লাগার পর বনের মধ্য দিয়ে কোয়িমব্রা থেকে ৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে পেদ্রোগাও গ্রান্দে জেলায় সরে আসারর সময় দাবানলের কবলে পড়ে অনেকেই মৃত্যুবরণ করেন। দাবানলে অন্তত ৫৯ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন দমকলকর্মীও রয়েছেন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ছয়জন দমকলকর্মী গুরুতরভাবে আহত হয়েছেন এবং দুজন নিখোঁজ রয়েছেন। পর্তুগালের প্রধানমন্ত্রী আন্তোনিও কস্তা জানিয়েছেন, ‘অনাকাঙ্খিতভাবে দেশটির কেন্দ্রীয় বনাঞ্চলে আগুন লাগার ঘটনাটি গত কয়েক বছরের মধ্যে সবচেয়ে বড় ট্র্যাজেডি।প্রাণহানি আরও বাড়তে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।আগুন নিয়ন্ত্রণে হিমশিম খাচ্ছেন দমকলকর্মীরা দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জর্জ গোমেজ জানান, ধোঁয়ায় আক্রান্ত হয়ে অন্তত তিনজন নিহত হয়েছেন। অপরদিকে, গাড়ি চালিয়ে আক্রান্ত এলাকা অতিক্রম হওয়ার পথে অন্তত ১৮ জন নিহত হয়েছেন। তিনি আরও জানান, চারদিক দিয়ে আগুন ছড়িয়ে পড়ছে।দমকল কর্মীরা জানিয়েছেন, অন্তত ৬০টি স্থান দিয়ে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছেন এক হাজার ৭০০ জন দমকল কর্মী।দাবানল ছড়িয়ে পড়ার পর স্পেন দুটি পানি বহনকারী বিমান পাঠিয়েছে।তবে বনে কী কারণে আগুন লাগলো সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে আন্তোনিও কস্তার ধারণা, বজ্রপাতের ফলে আগুন লেগে থাকতে পারে। পর্তুগালের মধ্য দিয়ে চলা দাবদাহের ফলে সেখানকার তাপমাত্রা এখন প্রায় ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
প্রতিবেদক/জিএম/ফোকাস বাংলা/১৮১১ঘ.

নাটোরে যুবলীগ কর্মীদের গণপিটুনীতে এক গ্রামের ২০জন আহত
ওষুধের অনিয়ম প্রতিরোধে কঠোর আইন করা হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
সারাদেশে সড়কে প্রাণ গেল ৮ জনের