Sunday, 25 October 2020

ফেনীর দাগনভূঞায় শিশুর লাশ উদ্ধার,স্বজনদের দাবী পরিকল্পিত হত্যাকান্ড

ফেনী,২সেপ্টেম্বর, ফোকাস বাংলা নিউজ:ফেনীর দাগনভূঞা পৌর শহরের রামানন্দপুর গ্রামের আসলাম ব্যাপারী বাড়ীর মিজানুর রহমানের ঘর থেকে মঙ্গলবার রাতে মো. ছাবিদ (৩) নামের এক শিশুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের স্বজনদের দাবী এটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বিজয়পুর গ্রামের আবদুল হকের ছেলে আবু ছায়েদ কে তালাক দিয়ে দুই ছেলে নিয়ে রামানন্দপুর গ্রামের মিজানুর রহমানের মেয়ে বৃষ্টি একই এলাকার মো. ইউছুপ রিয়াদের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়। দুই ছেলে ও নিহতের সৎ বাবাকে নিয়ে দাগনভূঞার পৌর শহরের ইয়ারপুর গ্রামের মোল্লা বাড়ীতে ভাড়া বাসায় বসবাস করত। ওইদিন রাতে ছাবিদ কে নিয়ে বাসা থেকে ঘুরতে বের হয় সৎ বাবা। এরপর ছেলে মোটর সাইকেলের সঙ্গে ধাক্কা লেগে আহত হয়েছে মর্মে দাগনভূঞা উপজেলা সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক অবস্থার অবনতি ঘটায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ফেনীতে প্রেরণ করেন। পথিমধ্যে মারা যায় ছাবিদ। এরপর নিহতের লাশ নানার বাড়ীতে দাফনের চেষ্টা করে। এলাকাবাসী বিষয়টি থানা পুলিশকে জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরদিন সকালে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। নিহতের দাদা আবদুল হক জানান, তার নাতীকে পরিকল্পিতভাবে বৃষ্টি ও তার দ্বিতীয় স্বামী ইউছুপ হত্যা করে সড়ক দুর্ঘটনার নাটক সাজিয়েছে। তিনি নাতীর মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেন। দাগনভূঞা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আসলাম উদ্দিন নিহতের মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে বলা যাবে ঘটনাটি হত্যা না দুর্ঘটনা।
সংবাদদাতা/ফোকাস বাংলা/১৭২০ ঘ.

খুলনায় দোকানের কর্মচারী হত্যা: ৪ জনের ফাঁসি
আগস্টে রেমিটেন্স ১ হাজার ৯৬৩ মিলিয়ন ডলার
নির্যাতন থেকে মুক্তি এমনিতেই মিলবে না: গয়েশ্বর
বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়া জড়িত,প্রমাণ খুনিদের দায়মুক্তি: কাদের